বিকৃতমস্তিষ্কের বলি হল ছয় বছরের শিশু জয়নাব

0
35

এমএসএ

গত ৪ জানুয়ারি পাকিস্তানের কাসুর শহরে নিখোঁজ হয় মাত্র ছয় বছরের শিশু জয়নাব। পর দিনে তাকে খুঁজতে থানায় এফআইআর/এজহার (ফার্স্ট ইনফরমেশন রিপোর্ট) দায়ের হলে মঙ্গলবার শিশুটির লাশ উদ্ধার করে দেশটির পুলিশ। ময়নাতদন্ত অনুসারে, জয়নাব মৃত্যুর আগে বন্দী অবস্থায় ধর্ষকদের নির্যাতনের শিকার হয়।

জয়নাবের মাতা-পিতা উমরাহ করতে সৌদিআরবে যাওয়ার পূর্বে নিজ শিশু জয়নাবকে তার খালার হেফাজতে রেখে যান। ধারনা করা হচ্ছে বৃহস্পতিবার জয়নাব বাসার নিকটে অবস্থিত এক ধর্মীয় শিক্ষাকেন্দ্রে গেলে সেখান থেকে অপহৃত হয়। জয়নাব নিখোঁজ হলে অসহায় পরিবার সিসি টিভি থেকে নেয়া একটি ভিডিও ক্লিপ সংগ্রহ করে। ফুটেজে দেখা যায় পিরোওয়ালা রোডে এক অপরিচিত লোকের সাথে জয়নাব হাটছে। এরপর বাকিটা মানবতার বিসর্জন। মা-বাবার দায়েরকৃত এজহারকে গুরুত্ব দিয়ে পুলিশ খুঁজে বের করে ফুটফুটে শিশুটির লাশ। পুলিশের ভাষ্যমতে জয়নাবকে চার থেকে পাঁচ দিন আগে হত্যা করা হয়েছে।

শিশু জয়নাবের মৃত্যুতে মূক হয়ে পড়েছেন তার মাতা-পিতা। বুধবার দেশে ফিরে নিজ শিশুর হত্যার বিচার দাবি করেন জয়নাবের পিতা। তিনি বলেন জয়নাবের হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত তার দাফন হবে না। জয়নাবের নির্মম হত্যায় শহরে চলছে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ। এদিকে বিক্ষোভে গুলিবর্ষণে দু’জন ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

শিশু জয়নাবের নির্মম হত্যা শুধু একটি দেশের একটি উদাহরণ নয়। পৃথিবীতে এমন বিকৃত মানসিকতার নজির যেন দৈনন্দিন ঘটনা। সমীক্ষা অনুসরণ করে দেখা যায় বছরে ৩০০০০০ মানুষ ধর্ষণ এবং ধর্ষণ প্রচেষ্টার শিকার হচ্ছে। ২০১৭ সালে বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরামের বার্ষিক প্রতিবেদনে উঠে আসে, দেশে প্রতিমাসে গড়ে ৪৯ জন শিশু ধর্ষণের করুণ শিকার হয়েছে। এছাড়া প্রতিবেদনে লক্ষ্য করা যায়, প্রতি মাসে গড় শিশু হত্যার সংখ্যা গিয়ে দাড়িয়েছে ২৮।

কিছু সংখ্যক বিকৃতবুদ্ধির মানুষের ভয়ে পুরো সমাজ আজ আতঙ্কিত। এদিকে একজন ধর্ষণের শিকার হলে তার পরিবার যেন আজীবন একঘরে হয়ে বসবাস শুরু করেন। ধর্ষণের বোঝা ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি কেন বইবে? আমৃত্যু এর শাস্তিভোগ করবে সমাজে বসবাসের অযোগ্য ধর্ষক।

তথ্যকোষ: ডোনডটকম ও সময়

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here