নড়াইলের কালিয়ায় ইজারাদারের নিকট ‘চাঁ/দা দাবি’

0
38
কালিয়া
কালিয়া, নড়াইল ম্যাপ

স্টাফ রিপোর্টার

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া হাট-বাজারের ইজারাদারের নিকট চাঁ/দা দাবির অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক যুবলীগ ও বিএনপি নেতাদের বিরু/দ্ধে। এই ঘটনায় শুক্রবার রাতে কালিয়া থানায় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ইজারাদার ও কালিয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আনুর মোহাম্মদ।

লিখিত অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া হাট-বাজারের ইজারা গত ১০ মার্চ দরপত্র দাখিলের প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ১৩ এপ্রিল কার্যাদেশের মাধ্যমে বাংলা ১৪২৮ সনের (এক বছর) মেয়াদে ইজারা নেন কালিয়া পৌরসভার সীতারামপুর গ্রামের আনুর মোহাম্মদ। ইজারা নেওয়ার পর ইজারাদার আনুর মোহাম্মদ খাজনা আদায়কারী নিয়োগ করেন। এরপর বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুর ১২.০০ টার দিকে চাঁচুড়ী হাট-বাজার সংলগ্ন খেলার মাঠে স্থাপিত হাটের খাজনা আদায়কারী চন্দ্রপুর গ্রামের হিমায়েত মোল্যা ও শোয়েব মোল্যা এবং চাপুলিয়া গ্রামের মো.আজগর মোল্যাকে স্থানীয় ‘স/ন্ত্রাসী’, ‘চাঁ/দাবাজ’ ও চি/হ্নিত মা/দক ব্যবসায়ী এবং চাঁচুড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.তৌরুত মোল্যা, ওই ইউনিয়নের ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও এলাকায় ভূমি দ/স্যু হিসেবে খ্যাত চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মুখোশধারী প্রধান শিক্ষক মো.আশরাফুল ইসলাম, চাঁচুড়ী ইউনিয়নের বিএনপির সভাপতি ফুর মোল্যা, ওই ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি আবুল বাসার মোল্যা, যুবদল নেতা সেকেন মোল্যা ও তাদের সহযোগী ১৫-২০ জনের একটি স/ন্ত্রা/সী দল খাজনা আদায়কারীদের খাজনা আদায় করে তাদের নিকট জমা দিতে প্রকাশ্যে হু/মকি প্রদান করেন। এ ঘটনা জানার পর ওইদিন দুপুর ২.০০টার দিকে ইজারাদার আনুর মোহাম্মদ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ইজাদারের নিকট চাঁদাবাজ ও তাদের লোকজন দুই লাখ টাকা চাঁ/দা দাবি করে এটা পরিশোধের পর খাজনা আদায়ের অনুমতি দেয়া যেতে পারে বলে অভিযোগে বলা হয়।

অভিযোগে আরও বলা হয়, চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা অ/স্ত্রের ভ/য় দেখিয়ে, প্রা/ণনা/শের হু/মকি দিয়ে হাট-বাজার থেকে তাদের তা/ড়িয়ে দেয় যুবলীগ ও বিএনপি নেতারা এবং তাদের লোকজন। ইজারাদার আনুর মোহাম্মদ ও তার লোকজন ভী/তসন্ত্র/স্ত্র হয়ে প্রা/ণভ/য়ে ওই হাট-বাজার থেকে ফিরে যান এবং পরদিন শুক্রবার রাত আটটার দিকে কালিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের অনুলিপি কালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর দিয়েছেন বলে আনুর মোহাম্মদ জানান।

এই ব্যাপারে চাঁচুড়ী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.তৌরুত মোল্যা বলেন, ‘চাঁচুড়ী হাট-বাজার সংলগ্ন খেলার মাঠটি পুরুলিয়া হাইস্কুলের নামে রেকর্ড আছে। সেখানে হাট বসাতে ওই স্কুল কর্তৃপক্ষের নিকট আলোচনার কথা বলতে গিয়েছিলাম। তবে আমি কারও নিকট কোন চাঁদা দাবি করিনি।’

একই ব্যাপারে বিএনপি নেতা ও চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘চাঁচুড়ী হাট-বাজার সংলগ্ন খেলার মাঠটির মালিকানা চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের। বিধায় ছেলেদের খেলাধূলা করার জন্য মাঠটি ফাঁকা করতে বলা হয়েছে। চাঁদা দাবির কোন ঘটনা ঘটেনি।’

অভিযোগকারী ইজারাদার আনুর মোহাম্মদ বলেন, ‘হাট-বাজারের ইজারার নীতিমালা অনুযায়ী হাট-বাজার সংলগ্ন ব্যক্তিগত জায়গার ওপরও যদি হাট-বাজার বসে এরও ইজারা উত্তোলনের অধিকার রয়েছে ইজারাদারের। অথচ বিদ্যালয়ের মাঠের দোহাই দিয়ে চাঁদাবাজ চক্রটি এখনো বিভিন্নভাবে আমার নিকট চাঁদা দাবি করছে। এর তথ্য প্রমাণও আমার নিকট সংরক্ষণ করা আছে। এ যাবতকাল সরকারকে ফাঁকি দিয়ে চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আশরাফুল ইসলাম ও তার লোকজন বিদ্যালয়ের নাম ভা/ঙ্গিয়ে নামমাত্র ইজারা দিয়ে ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হয়েছেন। এখন ন্যায্য সর্বোচ্চ মূল্যে ‘হাট-বাজারের ইজারা নেয়ায় আমাকে উ/চ্ছেদের চক্রান্ত করছে।’

একই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.নাজমুল হুদা অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘অভিযোগের সত্যতা পেয়ে কালিয়া থানার ওসিকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’এ প্রসঙ্গে কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ কনি মিয়া বলেন, ‘চাঁচুড়ী-পুরুলিয়া হাট-বাজারের ইজারাদার আনুর মোহাম্মাদের নিকট থেকে সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও চাঁ/দা দাবির লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here