গৃহব’ধূ আঁখি হ*ত্যার বিচা’র দা’বিতে নড়াইলের কালিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

0
127
গৃহব'ধূ আঁখি হ*ত্যার বিচা'র দা'বিতে নড়াইলের কালিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত
গৃহব'ধূ আঁখি হ*ত্যার বিচা'র দা'বিতে নড়াইলের কালিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার

গৃহব’ধূ আকলিমা খাতুন আঁখি (১৮) হ*ত্যার বি*চার দাবিতে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার জয়পুর পল্লীসমাজের উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে কালিয়ার সালামাবাদ ইউনিয়নের জয়পুর এলাকায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তব্য রাখেন ব্র্যাক সামাজিক ক্ষ*মতায়ন কর্মসূচীর কালিয়া উপজেলার মাঠ সংগঠক লিপি বিশ্বাস, সাবেক ইউপি সদস্য সুকরণ বেগম, খাদিজা বেগম, শাজনাজ পারভীন প্রমুখ। ব্র্যাক সামাজিক ক্ষ*মতায়ন কর্মসূচির সহযোগিতায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তারা বলেন, নড়াইল জেলার পাশ্ববর্তী মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার কেড়িনগর গ্রামের গৃহব*ধূ কলেজছাত্রী আকলিমা খাতুন আঁখিকে শ*রীরে ডি*জে’ল ঢে*লে পু*ড়িয়ে হ*ত্যা করা হয়েছে। গত ১ সেপ্টেম্বর রাতে চিকি*ৎসাধীন অবস্থায় আঁখির মৃ*ত্যু হয়। এর আগে গত ১৫ আগস্ট বিকেলে অ*গ্নিদ*গ্ধ হন আঁখি। আঁখি মাগুরার কেড়িনগরের আকরাম হোসেনের মেয়ে। এ ঘটনার দু’দিন পর (১৭ আগস্ট) আঁখির দাদা রতন আলী বাদী হয়ে আঁখির সা’বেক স্বা’মী একই গ্রামের (কেড়িনগর) নাজমুল মোল্যাসহ সাতজনের নাম উল্লেখ করে অ*জ্ঞা*তনামা আরও তিনজনের নামে মহম্মদপুর থানায় মা*মলা করেন। আমরা আঁখি হ*ত্যা মা*মলার আসা*মিদের দ্রুত বিচা*র চাই। নারী নি*র্যাতন ব*ন্ধ করে সুস্থ-সুন্দর পরিবেশ গড়তে চাই।

আঁখির দাদা রতন আলীসহ পরিবারের সদস্যরা জানান, দুই বছর আগে আঁখির সঙ্গে কেড়িনগরের নাজমুল মোল্যার বি’য়ে হয়। তারা একে-অপরকে ভালোবেসে বি’য়ে করলেও তাদের মধ্যে ব*নিব*না না হওয়ায় বিয়ের সাত মাস পর আঁখি নাজমুলকে তা*লাক দেয়। বিষয়টি নাজমুল মে’নে নি’তে পারেনি।

এরপর নাজমুল আঁখিকে প্রায়ই উ*ত্ত্যক্ত কর’ত এবং বিভিন্ন ধরণের হু*মকি দিত বলে অভি*যোগ রয়েছে। বিষয়টি আঁখি তার পরিবারকে জানায়। এর মধ্যে গত ১৫ আগস্ট বিকেলে আঁখি তাদের বাড়িতে বা’থরু’মে যাওয়ার সময় ওৎপেতে থাকা নাজমুলের লোকজন তাকে (আঁখি) জা*পটে ধরে। আঁখির ব্যবহৃত ও*ড়না দিয়ে তাকে বেঁ*ধে ফেলে শরীরে ডি’জে’ল ঢে’লে আ*গুন ধ*রিয়ে দে’য়। আগু*নে আঁখির শরী*রে বিভিন্ন অংশ পু*ড়ে যায় এবং তার আ*ত্মচিৎ*কারে লোকজন এগিয়ে আসে।

এরপর প্রথমে তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে এবং পরে শেখ হাসিনা জাতীয় বা*র্ন এন্ড প্লাস্টি*ক সা*র্জারি ইন্সটিটিউট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ১ সেপ্টেম্বর রাতে তার মৃ*ত্যু হয়। এদিকে আঁখি হ*ত্যা মামলার প্রধান আসা*মি নাজমুলের চাচি রত্নাসহ তার পরিবারের সদস্যরা বলেন, আঁখিকে আবার বি’য়ে করার জন্য ঘটনার তিন থেকে চার দিন আগে নাজমুল গ্রাম্য মাত’ব্বরদের ডেকে আনেন। আঁখিও নাজমুলকে বি’য়ে করতে চাইলেও মেয়ের পরিবার বি’য়ে দিতে রা*জি হয়নি। অন্য ছেলের সঙ্গে আঁখিকে জো*র করে বি’য়ে দেয়ার জন্য তার পরিবার চা*প দেয়ায় নিজে (আঁখি) শরী*রে আ*গুন দিয়ে আ*ত্মহ*ত্যার চে*ষ্টা চালায়।

মহম্মদপুর থানার ওসি তারক বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনায় নারী ও শি’শু নি*র্যাত*ন দ*মন আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলার পাঁচজন আসা*মিকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। তবে ঘটনা নিয়ে পরস্পর বিরো*ধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। তদ*ন্ত করে প্রকৃত ঘটনা বের করা হবে।