তেরখাদায় লোকবল সংকটে স্থবির বিভিন্ন দপ্তরের কার্যক্রম

0
10
তেরখাদা

তেরখাদা প্রতিনিধি

অবহেলিত উন্নয়ন বঞ্চিত খুলনা জেলার জনপদ নামে খ্যাত তেরখাদা উপজেলায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী সংকট প্রকট আকার ধারন করেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস, উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা মৎস্য অফিস, উপজেলা প্রকৌশলী অফিস, উপজেলা কৃষি অফিস, উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা সমবায় অফিস, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিস, উপজেলা খাদ্য অফিস, পরিসংখ্যান অফিস, মহিলা বিষয়ক অফিস সহ অধিকাংশ অফিসে জনবল সংকট দীর্ঘদিনের। প্রতিটি অফিসে রয়েছে একাধিক পদশুন্য। ফলে উপজেলায় সরকারি কার্যক্রম হয়ে পড়েছে স্থবির। সাধারন মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন রাষ্ট্রীয় সেবা থেকে। তাই এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি আকর্ষন করে জরুরী প্রতিকার চেয়েছেন ভুক্তভুগী এলাকাবাসী।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বছরের পর বছর উপজেলার বিভিন্নদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীর পদ শূন্য রয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৭৫ টি পদের মধ্যে জন মেডিকেল অফিসার/ডাক্তারসহ কর্মচারীর ৮৫ টি পদশূন্য রয়েছে। উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের কর্মকর্তার পদটিও দীর্ঘদিন ধরে শুন্য রয়েছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অফিসের কানুনগো, প্রধান অফিস সহকারী কাম হিসাব রক্ষক কর্মকর্তার পদ শূন্য আছে। উপজেলার হিসাব রক্ষণ অফিসের অডিটরের ২টি পদ সহ জুনিয়র অডিটরের ৩টি পদ শুন্য রয়েছে। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার পদটি দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী অফিসের নলকূপ কর্মচারী ম্যাকানিক পদটি দীর্ঘদিন শূন্য। খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসে উপজেলা উপ-খাদ্য পরিদর্শক সহ তিনটি পদ শূন্য রয়েছে। মৎস অফিসের সহকারী মৎস কর্মকর্তা সহ তিনটি পদ শূন্য রয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে উপ-সহকারী পদটি দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে। উপজেলা কৃষি অফিসে অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা, কৃষি সম্প্রসারন কর্মকর্তার পদ সহ উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তার ১১ পদ দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে। উপজেলা প্রকৌশলী অফিসে অফিস সহকারী সহ ৩টি পদ দির্ঘদিন শুন্য। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সহকারী সহ ৪টি পদ দীর্ঘদিন শুন্য রয়েছে। পরিসংখ্যান অফিসের জুনিয়ার পরিসংখ্যান সহকারী পদ সহ দুইটি পদ শুন্য। উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা সহ ৭টি পদ শুন্য। মহিলা বিষয়ক অফিসের অফিস সহকারী পদটি দীর্ঘদিন শুন্য আছে। উপজেলা সমাজ সেবা অফিসে কারিগরি প্রশিক্ষক সহ ২টি পদ শুন্য। সমবায় অফিসে অফিস সহকারীর পদটি দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে। ফলে প্রতিদিন সেবা বঞ্চিত হয়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন তেরখাদা উপজেলাবাসী।

খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মুর্শেদী বলেন, জনগনের দ্বোরগড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই বন্ধপরিকর; আমি তো তেরখাদা-রূপসা ও দিঘলিয়াবাসীর সেবক মাত্র। তেরখাদায় সরকারি দপ্তরগুলোতে জনবল সংকটে জনসেবা বিঘ্নিত হচ্ছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে তেরখাদার সকল সরকারি দপ্তরের জনবল সংকট সমাধান করা হবে। জনদুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, সব জায়গায় জনবল সংকট, সরকারি নিয়োগের মাধ্যমে অবশ্যই এটি সমাধান হবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।