ঝরে পড়ছে শিক্ষার্থী; বাড়ছে শিশু শ্রম ও বাল্যবিবাহ

0
4
ঝরে পড়ছে শিক্ষার্থী; বাড়ছে শিশু শ্রম ও বাল্যবিবাহ
ঝ/রে পড়ছে শিক্ষার্থী; বাড়ছে শি/শু শ্রম ও বা/ল্যবি/বাহ

ডেস্ক রিপোর্ট

১০ বছরের শিশু নয়ন হাওলাদার। দেশে কোভিড সংক্রমণের আগে নিয়মিত স্কুলে গেলেও আর্থিক সংকটে এখন তার পরিচয় শরবত বিক্রেতা। নয়নের পড়ালেখা করার ইচ্ছা থাকলেও পেটের দায়ে এখন জীবিকা নির্বাহ করে দিন কাটাতে হচ্ছে। নয়ন বলেন, “পড়ালেখা করার ইচ্ছা ছিল, কিন্তু করতে পারছি না। এখন যদি পড়ালেখা করতে হয় তাহলে আমি খাইতে পারবো না।” করোনার প্রভাবে অধিকাংশ দরিদ্র শিক্ষার্থী শিশু শ্রমে জড়িয়ে পড়ছে, বেড়েছে বাল্যবিবাহ।

২০২০ সালের মার্চ থেকে দেড় বছর দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় স্কুল থেকে ঝরে পড়েছে অনেক শিক্ষার্থী। বেসরকারি সংস্থা ব্রাক ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স এবং পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপ্যাটরি রিসার্চ সেন্টারের জরিপ বলছে প্রাথমিকের ১৯ শতাংশ এবং মাধ্যমিকের ২৫ শতাংশ শিক্ষার্থী শিক্ষা কার্যক্রমের বাইরে চলে গেছে। আগের বছরে যার হার ছিল প্রাথমিকে ১৪ শতাংশ এবং মাধ্যমিকে ২১ শতাংশ। পরিবারের আর্থিক অনটন ও বাল্যবিবাহ নানা সমস্যাকে কারণ হিসেবে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর বিভাগের অধ্যাপক ডঃ আব্দুস সালাম বলেন, অনেক অভিভাবকের পেশা পরিবর্তনের কারণে শিক্ষার্থীরা শিক্ষাকেন্দ্রে যাবেনা; তারা ঝরে পড়বে প্রাথমিক স্কুল থেকে। আর মাধ্যমিক পর্যায়ে অনেকের কর্মের সাথে সংশ্লিষ্ট হবে। অনেকে বাল্যবিবাহের কারণে ঝরে পড়বে এবং উচ্চ শিক্ষা স্তরে জাতীয় অর্থনৈতিক কারণে একটা বড় অংশ ঝরে পড়বে। কোভিড পরবর্তী সময়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতির হার ৭০ শতাংশ বলে দাবি মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের। আর ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের সংখ্যা নির্ণয়ের আগামী অক্টোবর থেকেই কাজ শুরু করবে বাংলাদেশ শিক্ষাতথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরো (ব্যানবেইস)।

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের আর্থিক প্রণোদনা সহ নতুন প্রকল্প গ্রহণের সুপারিশ শিক্ষা বিশেষজ্ঞদের। দেশে প্রায় প্রাথমিকে প্রায় দুই কোটি এবং মাধ্যমিকে ৯০ লাখ ১৬ হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে। জাতিসংঘ সূত্র অনুযায়ী, কোভিড ১৯ এর কারণে বিশ্বের প্রায় ২ কোটি ৫০ লাখ শিক্ষার্থী আর কখনোই শিক্ষাঙ্গনে ফিরতে পারবে না। এদিকে ইউনিসেফ জানিয়েছে, বাংলাদেশের ৪০ লাখ শিক্ষার্থী করোনা প্রভাবে প্রথম দিন স্কুলে যেতে পারেনি। ঝরেপড়া শিক্ষার্থীদের সঠিক সংখ্যা নির্ণয়ের পাশাপাশি ঝরেপড়া রোধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বাংলাদেশ সরকার। (সূত্রঃ সময় টিভি)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here