শিশুদের অনলাইন সুরক্ষায় কাজ করবে নড়াইলের সৌরভের তৈরি অ্যাপ “ঠকে গেলেন”

0
3
শিশুদের অনলাইন সুরক্ষায় কাজ করবে নড়াইলের সৌরভের তৈরি অ্যাপ
শিশুদের অনলাইন সুরক্ষায় কাজ করবে নড়াইলের সৌরভের তৈরি অ্যাপ "ঠকে গেলেন"

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা যেন নিত্যেদিনের সঙ্গী। ক্রমেই বাড়ছে এই প্রতারণা। আর এই প্রতারণার তালিকায় প্রথমেই আছে কিশোর কিশোরীরা। তাই অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণা বন্ধে এবং অনলাইন প্রতারণা সম্পর্কে সকলকে সচেতন করতে নড়াইল জেলার ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর আশিকুর রহমান সৌরভ তৈরি করেছেন ‘ঠকে গেলেন’ নামের একটি মোবাইল অ্যাপ। এই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে কেনাকাটা করতে গিয়ে প্রতারণার শিকার হলে অভিযোগ করা যাবে এবং সাইবার বিষয়য়ক সেবা নেওয়া যাবে। সৌরভের এই ‘ঠকে গেলেন’ অ্যাপ কাজ করবে ১৩ থেকে ১৮ বছরের শিশুদের নিয়ে। বতর্মান সময়ে সব চেয়ে বেশি প্রতারণার শিকার হয় শিশুরা। তারা না বুঝেই প্রতারকদের ফাঁদে পা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়।

সৌরভ জানান, আমাদের আশেপাশের প্রতারিত শিশুরা বিভিন্ন সমস্যার কারণে প্রতারিত হওয়া সত্ত্বেও অভিযোগ করতে চায় না। তারা যাতে ভয় না পেয়ে অভিযোগ করতে পারে সে উদ্দেশ্যেই সৌরভ এই অ্যাপটি তৈরি করেছে। এই অ্যাাপটির মাধ্যামে শিশুরা অনেক সহজে অভিযোগ করতে পারবে। এই মোবাইল অ্যাপটির নাম দিয়েছেন ‘ঠকে গেলেন’ । সৌরভ বলেন, আমি বিভিন্ন নিউজ চ্যাননেলে দেখেছি এই অনলাইন কেনাকাটায় প্রতারণার বিষয়ে এবং গুগল থেকে আরো বেশি জানতে পেরেছি। এই প্রতারণা বন্ধে এবং মানুষকে সচেতন করতে এই অ্যাপ তৈরি করেছি।

আশিকুর রহমান সৌরভ নড়াইল জেলার সদর উপজেলার আলাদাতপুর গ্রামের বাসিন্দা। বাবা আশরাফুল খান এবং মাতা মোসা: সালমা আক্তার। বাবা-মায়ের দুই সন্তানের মধ্যে সে বড়। লেখাপড়া করছেন যশোর বিএফ শাহীন কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীতে। সে লেখাপড়ার পাশাপাশি করেন অ্যাপ তৈরির কাজ। সৌরভ আশা করেন তার তৈরি এই অ্যাপ অনলাইন প্রতারণা বন্ধে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।

উল্লেখ্য, সৌরভ দীর্ঘদিন যাবত সময়োপযোগী অ্যাপ নিয়ে গবেষনা করে যাচ্ছেন। তার উদ্ভাবিত অ্যাপ নিয়ে নড়াইল জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে কথা বলেছেন। প্রশাসনের সকলেই তাকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন বলে সৌরভ জানিয়েছেন।