নড়াইলে ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের শিক্ষা ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে আলোচনা সভা

6
7
নড়াইলে ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের শিক্ষা ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে আলোচনা সভা
নড়াইলে ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের শিক্ষা ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে আলোচনা সভা

ফরহাদ খান

নড়াইলে ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের শিক্ষা ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন এবং বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শনিবার (৯ অক্টোবর) বিকেলে নড়াইল শহর সংলগ্ন ঘোড়াখালি এলাকায় ভাসমান বেদে পল্লীতে এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান।

স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মির্জা গালিব সতেজের উদ্যোগে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন-নড়াইল পৌরসভার কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এস এম শাহ পরান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার রুহান রাজ, সোহাগ ফরাজী, সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম হোসেন, সৌরভ হোসেনসহ অনেকে।
এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-নড়াইল কালেক্টরেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক উজির আলী, স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের সদস্য ফারিবা, রানা, মর্ম, আরিশা, পর্বতসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ।

এদিকে জেলা প্রশাসক ভাসমান বেদেপল্লী ঘুরে সবার খোঁজখবর নেন। দ্রুতই তাদের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থা করে দেয়ার ঘোষণা দেন। শিশুদের মাঝে বইসহ শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন।
স্বপ্নের খোঁজের প্রতিষ্ঠাতা মির্জা গালিব সতেজ জানান, প্রায় এক বছর ধরে নড়াইলে ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের শিক্ষা ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে কাজ করছেন তারা। স্বপ্নের খোঁজের উদ্যোগে ‘স্বপ্নের পাঠশালা’র মাধ্যমে বেদে সম্প্রদায়ের শিশু-কিশোর, নারী-পুরুষসহ সব বয়সের মানুষকে পড়ালেখা শেখানো হচ্ছে।

এ পর্যন্ত ছয়টি বেদে বহরের মাঝে পাঠদান দেয়া হয়েছে। শিশু থেকে শুরু করে বিভিন্ন বয়সের ২০০ বেদে স্বাক্ষরতার আওতায় এসেছেন। এছাড়া পাঠদানের বিরতিতে শিশুদের টিফিনের ব্যবস্থা রয়েছে। বেদে সম্প্রদায়ের অভিভাবকদের মাঝে বাল্যবিয়ের কুফলসহ সামাজিক সচেনতামূলক বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কেও আলোচনা করা হয়। স্বপ্নের পাঠশালায় বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ পড়–য়া সাতজন শিক্ষার্থী সপ্তাহে চারদিন পাঠদান দিয়ে থাকেন।

মির্জা গালিব সতেজ বলেন, ভবিষ্যতেও আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। দেশব্যাপী বেদে সম্প্রদায়ের জীবনযাত্রার মানউন্নয়নে কাজ করতে চায় স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশন। আমাদের এ কাজে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান স্যারসহ গণমাধ্যমকর্মী, জনপ্রতিনিধি, পরিবারের সদস্য ও বিভিন্ন পেশার মানুষ উৎসাহিত করেন।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান বলেন, স্বপ্নের খোঁজের ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বেদে সম্প্রদায়ের মাঝে শিক্ষাদান, বাল্যবিয়েসহ বিভিন্ন বিষয়ে সচেতন করা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা তথাকথিত সস্তা বিনোদনের দিকে না ঝুঁকে সমাজের পিছিয়ে পড়া বেদে সম্প্রদায়ের মাঝে আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করছেন। আমার পক্ষ থেকে তাদের সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। এছাড়া করোনাকালীন সময়ে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের সদস্যরা অসহায় মানুষকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, বিনামূল্যে সবজি বাজার, চিকিৎসাসেবাসহ বিভিন্ন সহযোগিতা দিয়েছে।

সংগঠনের সদস্যরা জানান, পড়ালেখার টাকা জমিয়ে এবং পারিবারিক সহযোগিতার মাধ্যমে ২০১৭ সাল থেকে কাজ করছেন। মূলত সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের জন্য কাজ করেন তারা। বর্তমানে তাদের সদস্য সংখ্যা ৪৫ জন। করোনাকালীন সময়ে অসহায় মানুষকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, বিনামূল্যে সবজি বাজার, গরিব কৃষকের ধান ক/র্তন, চিকিৎসাসেবা, হাসপাতাল ও এতিমখানায় ইফতার বিতরণ, ঈদে ছিন্নমূল শিশুদের মাঝে নতুন পোশাক উপহার দেয়াসহ বিভিন্ন সহযোগিতা করেন তারা।

6 COMMENTS

  1. hey there and thank you in your information – I have definitely picked up something new from proper here. I did on the other hand expertise several technical issues the usage of this site, as I skilled to reload the website lots of times previous to I may just get it to load correctly. I have been brooding about if your web host is OK? Now not that I’m complaining, however sluggish loading cases occasions will often impact your placement in google and can harm your quality score if ads and ***********|advertising|advertising|advertising and *********** with Adwords. Anyway I am including this RSS to my email and can look out for much extra of your respective exciting content. Ensure that you update this once more soon..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here