আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেঃ নড়াইলের কালিয়া পৌর স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী লিটন

0
28
আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেঃ নড়াইলের কালিয়া পৌর স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী লিটন
আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেঃ নড়াইলের কালিয়া পৌর স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী লিটন

স্টাফ রিপোর্টার

নড়াইলের কালিয়া পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান মেয়র ফকির মুশফিকুর রহমান লিটন বলেছেন, আওয়ামীলীগের মনোনয়নপাপ্ত প্রার্থী ওহিদুজ্জামান হীরা নৌকা মার্কার অফিসে আগুন দিয়ে আমার নামে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

গত শনিবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে নিজেরা আগুন দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও অসত্য অভিযোগ তুলেছে। নির্বাচনে আমার অবস্থান ভাল হওয়ায় তারা সু-পরিকল্পিতভাবে ওই ঘটিয়ে আমার নেতাকর্মীদের নামে মামলা দিয়ে মাঠ ছাড়া করার অপচেষ্টা করছে। আমি জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জেলা নির্বাচন অফিসার, রিটার্ণিং অফিসার সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে জোর দাবি জানাই যে, ঘটনাটি সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

রোববার (২৪ জানুয়ারী) বিকেলে কালিয়া পৌরসভার বেন্দারচর তে-মাথায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান।
লিটন আরো বলেন, ‘ আমি বিগত পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করি। গত ৫ বছরে পৌরসভার ব্যাপক উন্নয়ন করেছি। এবারের নির্বাচনেও কাষ্টিং ভোটের ৮০% ভোট পেয়ে ইনশাল্লাহ নির্বাচিত হবো। আমার এই জনপ্রিয়তা দেখে ঈশ^ার্ণিত হয়ে প্রতিপক্ষ নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হীরা পরিকল্পিতভাবে নিজের অফিস পুড়িয়ে আমাদের হয়রানী করার চেষ্টা করছে। কালিয়া পৌরসভার ভোটাররা সচেতন। আশা করি এসব ষড়যন্ত্রের জবাব আগামী ৩০ জানুয়ারী ব্যালটের মাধ্যমে জবাব দিবেন।

তিনি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন সম্পন্নে জন্য প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি জোর দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনের সময় মুশফিকুর রহমান লিটনের কর্মী-সমর্থকেরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, শনিবার (২৩ জানুয়ারী) দিনগত রাত ১টার দিকে বড়কালিয়ার ব্যাপারীপাড়ায় আওয়ামীলীগেরগ প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হীরা তার নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল নিক্ষেপ ও পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ করেন প্রতিপক্ষ স্বতন্ত্র প্রার্থীী ফকির মুশফিকুর রহমান লিটনের কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। নড়াইলের সহকারী পুলিশ সুপার (কালিয়া সার্কেল) রিপন চন্দ্র সরকার বলেন, বিষয়টি সুষ্ঠভাবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কালিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসসূত্রে জানাগেছে, আগামী ৩০ জানুয়ারী তৃতীয়ধাপে কালিয়া পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মেয়র পদে ৩জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামীলীগের মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থী ওয়াহিদুজ্জামান হীরা, বিএনপির এসএম ওয়াহিদুজ্জামান মিলু ও বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র ফকির মুশফিকুর রহমান লিটন।

এছাড়া সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩২জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ১৬হাজার ৩শ ৮৩জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৮হাজার ১শ ৪৭ জন এবং নারী ভোটার ৮হাজার ২শ ৩৬ জন। ১৯৭৬ সালে গঠিত কালিয়া পৌরসভাটি ২০১১ সালে দ্বিতীয় শ্রেণীতে উন্নীত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here