নড়াইলে বৃক্ষরোপণসহ এতি’ম ও দরিদ্রদের মাঝে ফল ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

0
15
নড়াইলে বৃক্ষরোপণসহ এতি'ম ও দরিদ্রদের মাঝে ফল ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ
নড়াইলে বৃক্ষরোপণসহ এতি'ম ও দরিদ্রদের মাঝে ফল ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার

নড়াইলে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার (১৫ জুলাই) দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে এ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) জাহিদ হাসান, নড়াইল পৌরসভার কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, মহিলা যুবলীগ জেলা শাখার আহবায়ক নাসিমা রহমান পলি, বরাশুলা শিশু সদন কমপ্লে*ক্স ও এতিমখানার পরিচালক ইউসুফ আলী, সীমাখালী এতিমখানার শিক্ষক ক্বারি শের আলী, বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্যোক্তা স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মির্জা গালিব সতেজ, সদস্য কে এম রাহাত নেওয়াজ, সোহাগ ফরাজি, শামীম হোসেন, নেওয়াজ মোরশেদ, শেখ সাদি, ইমাম আহসান, শাহরিয়ার রাজ প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বরে বিভিন্ন প্রজাতির পাঁচটি চারা রোপণ করা হয়। এর আগে দু’টি এতিমখানার শিশুদের মাঝে আম, কাঁঠাল, আনারস, পেয়ারা, কলাসহ শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা।

এদিকে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মির্জা গালিব সতেজের উদ্যোগে তার ১০ বন্ধু মিলে দক্ষিণ নড়াইল ও সদরের চন্ডিবরপুর গ্রামে বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির ফলজ, বনজ ও ওষুধি গাছের ২০০ চারা রোপন করেন।

স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার স্যায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিয়ারিং বিষয়ের শিক্ষার্থী মির্জা গালিব সতেজ বলেন, ‘গাছ লাগিয়ে ভরব দেশ, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’-এই স্লোগানে অনুপ্রাণিত হয়ে মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমাদের পক্ষ থেকে বৃক্ষরোপণ করছি। এছাড়া এতি’মদের মাঝে মৌসুমী ফল বিতরণ, ৫০ জন দরিদ্র মেধাবী ছাত্রছাত্রীর মাঝে শিক্ষা উপকরণ প্রদান করা হয়েছে। এর আগে করোনাভাইরাসের শুরু থেকে ৫০০ শতাধিক অ’সহায় মানুষকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, বিনামূল্যের সবজি বাজার চালু, গরিব কৃষকের ধানক*র্তন, ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প, ইফতার ও ঈদে নতুন পোশাক বিতরণ করেছি। এছাড়া মাস্ক বিতরণসহ বিভিন্ন এলাকায় জীবা’ণুনা’শক স্প্রে করা হয়েছে।’

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বৃক্ষরোপনসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজকে স্বাগত জানাই। এই সংগঠনের তারুণ্য শক্তি ইতিবাচক কাজে আরো বেশি ভূমিকা রাখবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here